বগুড়ার শাজাহানপুরে বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী খলিলুর রহমান নামে এক উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতা নিহত হয়েছেন। এ সময় তার ছেলে মমেত হাসান গুরুতর আহত হন। তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে স্থানীয়রা।

 উপজেলার সাজাপুর এলাকার ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে মঙ্গলবার দুপুর পৌণে দুইটার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। ৫০ বছরের খলিলুর রহমান বগুড়া সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ও সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা। হতাহতরা সদরের উলিপুর পল্লী মঙ্গল এলাকার বাসিন্দা। এসব তথ্য নিশ্চিত করেন বগুড়া ছিলিমপুর মেডিক্যাল ফাঁড়ির এএসআই রকিবুর হাসান। তিনি জানান, সাজাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী একজন মারা যান।

আর তার ছেলে মমেতকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করায় স্থানীয়রা। শেরপুর হাইওয়ে ক্যাম্পের এসআই কাজী রজিবুল ইসলাম বলেন, খলিল ও তার ছেলে পালসার মোটরসাইকেলে ছিলেন। বড় কোনো গাড়ির ধাক্কায় বাবা ঘটনাস্থলেই নিহত হন। স্থানীয়রা সঠিকভাবে বলতে পারছে না সেটি বাস নাকি ট্রাক ছিল। আমরা মরদেহ শজিমেকের মর্গে পাঠিয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে। আর পরিবারের সদস্যরা এলে প্রয়োজনী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।   খলিলের দলীয় পরিচয় নিশ্চিত করেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল ইসলাম রাজ। তিনি বলেন, মোবাইলে ঘটনাটি শুনেছি। আমরা ঘটনাস্থলে যাচ্ছি।